ডার্ক সার্কেলের কারণ ও দূর করার উপায়

প্রায় সময় অনেক মানুষকে ডার্ক সার্কেলের সমস্যার মধ্যে পরতে দেখা যায়। ডার্ক সার্কেল মূলত হলো চোখের নিচে জমা হয়ে থাকা কালি৷ এই চোখের নিচে কালো ভাবের কারণে যত সুন্দর করেই চোখ সাজানো হোক না কেন চোখের সৌন্দর্য সঠিকভাবে ফুটিয়ে তোলা সম্ভব হয় না। অনেক সময় ডার্ক সার্কেল এর মাত্রা এত বেশি হয় যে কনসিলার কিংবা ফাউন্ডেশন দিয়েও তা ঢেকে ফেলার সুযোগ থাকে না৷ তাই আমরা জানব কেন হয়ে থাকে ডার্ক সার্কেল বা চোখের নিচের কালো ভাব :

১। ঘুমের অভাব :

ঘুমের ঘাটতির কারণে সবচেয়ে বেশি ডার্ক সার্কেল হয়ে থাকে৷
বর্তমান লাইফ স্টাইলে আমরা সবাই কমবেশি রাত জাগি, অফিসের কাজ পড়াশুনা অন্যান্য যে কোন কর্মকান্ড আমরা রাতের জন্য রেখে দেই৷ রাত জেগে কম্পিউটার, ল্যাপটপ এবং মোবাইলে অনেকক্ষণ ধরে কাজ করলে কিংবা সময় কাটালে চোখের নিচে কালো ভাব হতে পারে৷ রাত জাগার ফলে ডার্ক সার্কেল এর পাশাপাশি চোখে ফোলা ভাবও সৃষ্টি হতে পারে।

২। সূর্যের আলো :

অনেকেই সানস্ক্রিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে অবহেলা করে থাকে। নিয়মিত এবং সঠিকভাবে অনেকেই সানস্ক্রিন ব্যবহার করে না।
অতিরিক্ত সূর্যের আলোর কাছাকাছি থাকলে চোখের নিচে কালো দাগ পড়তে পারে। সূর্যের ক্ষতিকারক আলো ত্বকের অন্যান্য স্থানের মত চোখের নিচেও তার প্রভাব ফেলে।তাই দিনের পর দিন সানস্ক্রিন ব্যবহার না করার ফলে চোখের নিচে কালো দাগ জমে যায়।

৩। আয়োডিনের অভাব :

আয়োডিন সমৃদ্ধ খাবারের অভাবের ফলে চোখের নিচে কালো দাগ পরতে পারে তথ্য অনেকেরই অজানা৷ সাধারণত আয়োডিনের অভাবে থাইরয়েডের সমস্যা হয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে অধিকাংশ থাইরয়েড রোগের চোখের নিচে কালো দাগ লক্ষ্য করা যায়৷

৪। হরমোনাল ইমব্যালেন্স :

পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম, প্রেগনেন্সি, মেনোপজ, প্রি মেন্সট্রুয়াল সিনড্রোম ইত্যাদি সময় হরমোন ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে৷ তাই এই সময়গুলোতে অনেকের চোখের নিচে কালো দাগ পরে যায়৷

৫। বংশগত কারণ :

অনেকের ডার্ক সার্কেলের সঠিক কারণ খুঁজে পাওয়া যায় না৷
এক্ষেত্রে দেখা যায় মা-বাবা কিংবা রক্তের সম্পর্কের কারো ডার্ক সার্কেলে সমস্যা রয়েছে। জিনগত কারণেও ডার্ক সার্কেল বা চোখের নিচে কালো দাগে সমস্যা হতে পারে৷

ডার্ক সার্কেল দূর করার উপায় :

ডার্ক সার্কেল দূর করার জন্য একেক জন একেক পথ অবলম্বন করে থাকে। অতিরিক্ত ডার্ক সার্কেল এর জন্য অনেকে লেজার ট্রিটমেন্টও নিয়ে থাকে।তবে ডার্ক সার্কেল দূর করার জন্য সঠিকভাবে স্কিন কেয়ার রুটিন মেন্টেন করতে হবে। যেমন ঘর থেকে বের হওয়ার আগে সঠিকভাবে সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে। সূর্যের ক্ষতিকারক আলো থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারলে ডার্ক সার্কেলে সমস্যা কমে আসবে। এছাড়া নিজের লাইফ স্টাইলে কিছুটা পরিবর্তন আনতে হবে। প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণের ঘুমাতে হবে এবং স্ট্রেস ফ্রি থাকতে হবে। প্রতিদিন নিজের ডায়েটে আয়োডিন সমৃদ্ধ মাছ-মাংস ডিম ইত্যাদি খাবার রাখতে হবে। হরমোনাল কোন সমস্যার কারণে চোখের নিচে কালি পড়ছে কিনা তা জানার জন্য চিকিৎসা কে শরণাপন্ন হতে হবে।

-10%
Original price was: 1,850৳.Current price is: 1,665৳.
-10%
Original price was: 1,890৳.Current price is: 1,701৳.
-10%
Original price was: 1,750৳.Current price is: 1,575৳.

ঘরোয়া রূপচর্চা :

ঘরোয়া কিছু পন্থা অবলম্বন করে আপনার ডার্ক সার্কেল কিছুটা কমিয়ে আনতে পারেন৷ ডার্ক সার্কেল কমাতে শসা ভীষণ উপকারী। শসার রস নিয়মিত চোখের নিচে একটি তুলো দিয়ে লাগাতে পারেন। টমেটোতে প্রচুর পরিমাণে লাইকোপিন থাকায় এটিও কিন্তু চোখের কালো দাগের জন্য উপকারী তাই টমেটোর রস চোখের নিচে দিতে পারেন৷ একটি টি ব্যাগ ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে চোখের উপর ২০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে দিতে পারেন। নিয়মিত এটি করার ফলে আপনার চোখের নিচের কালো ভাব কিছুটা কমে আসবে৷

Leave a Reply